মসজিদের ভেতরে আওয়ামী লীগ সভাপতির মাস্তানি

স্টাফ করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ০৯:২৫ পিএম, ৮ জানুয়ারি ২০২১ শুক্রবার

মসজিদের ভেতরে আওয়ামী লীগ সভাপতির মাস্তানি

সিদ্ধিরগঞ্জে মসজিদের জেনারেটর কেনা কেন্দ্র করে তুমুল হট্টগোল ও মারধরের ঘটনা ঘটেছে। ৮ জানুয়ারী শুক্রবার জুমার নামাজের পূর্বে সিদ্ধিরগঞ্জের পুলস্থ পাইনাদী মিজমিজি সিদ্ধিরগঞ্জ কবরস্থান কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ কমপ্লেক্সে এ ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতির সমর্থকদের হাতে লাঞ্ছিত হয়েছে সাধারণ সম্পাদক হাজী মফিজ উদ্দিন মজু। ২০১৫ সাল থেকে পাইনাদী মিজমিজি সিদ্ধিরগঞ্জ কবরস্থান কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ কমপ্লেক্সের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি মজিবুর রহমান।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে মসজিদে উপস্থিত ছিলেন এমন কয়েক জনের সাথে কথা জানা যায়, বিদ্যুৎ এর সমস্যার কারণে মুসুল্লীদের নামাজ পড়ছে সমস্যা হয়। এই কারণে গত ৪ মাস পূর্বে মসজিদের জেনারেটর ক্রয় করার সিদ্ধান্ত হয়। এই জেনারেটর ক্রয় করতে প্রয়োজন ৪ লাখ টাকা। এ লক্ষে মসজিদ পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক হাজী মফিজ উদ্দিন মজু বিভিন্ন লোকজনের কাছ থেকে প্রায় ৫ লাখ তোলেন। টাকা উঠানোর পর এ বিষয়ে সাধারণ সম্পাদক হাজী মফিজ উদ্দিন মজু সভাপতি মজিবুর রহমানের নিকট গেলে তিনি দেখা দেননি।

৪ মাস অতিবাহিত হওয়ার পরও সভাপতি মজিবুর রহমান জেনারেটর কেনার অনুমোদন না দেওয়ায় মুসুল্লীদের নামাজ আদায়ের সুবিধা কথা চিন্ত করে গত ২৫ ডিসেম্বর আইপিএস লাগানোর জন্য উদ্যোগ নেন।

বিষয়টি জানতে পেরে সভাপতি মজিবুর রহমান মসজিদের হিসাব রক্ষন মাহবুবুর রহমান মাস্টারকে গালাগাল করেন। পরে বিষয়টি নিয়ে গত ১ জানুয়ারী শুক্রবার জুমার নামাজের পূর্বে মসজিদের মতোয়ালী মনির হোসেন মুসুল্লীদের উদ্দেশ্যে কথা কথা বলেন।

ওই সময়ে মনির হোসেন বলেন, মসজিদের উন্নয়ন হবে, এবং নানা বিষয়ে তদারকি করবেন এই জন্যই তো সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি মজিবুর রহমানকে মসজিদ কমিটির সভাপতি করা হয়েছে। এরই জের শুক্রবার পূর্ব করিকল্পিত ভাবে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি মজিবুর রহমান ৫ শতাধিক সমর্থক মসজিদে এনে রাখেন হট্টগোল করার জন্য।

এসময় সভাপতি মজিবুর রহমান হুজুরের বয়ানের পর এ বিষয়ে বক্তব্য রাখছিলেন। এসময় বক্তব্য চলাকালে মসজিদ পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক হাজী মফিজ উদ্দিন মজু দাঁড়িয়ে বলেন, সভাপতির বক্তব্য শেষে তিনি কথা বলবেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি মজিবুর রহমানের সমর্থকরা মসজিদ পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক হাজী মফিজ উদ্দিন মজুর উপর হামলা করে চড় থাপ্পর মারেন।

মসজিদ পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক হাজী মফিজ উদ্দিন মজু বলেন, পূর্ব করিকল্পিত ভাবে সভাপতি মজিবুর রহমান ৫’ শতাধিক সমর্থক এন রেখেছেন আমার উপর হামলা করার জন্য। তা আমি আগে বুঝতে পারিনি। জেনারেটর কেনার জন্য মুসুল্লীদের কাছ থেকে টাকা ৪ মাস যাবত সভাপতির পেছনে ঘুরছি কিন্তু তিনি সময় দিচ্ছেন না। এতে মুসুল্লীদের নামাজ আদায়ে চরম সমস্যা হচ্ছে। এই ভাবে মসজিদে হট্টগোল মেনে নিতে পারছি না।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও মসজিদ কমিটির সভাপতি মজিবুর রহমান মসজিদের ভিতরে মারামারির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আমাকে মজু ও তার পরিবারের লোকজন চোর বলায় এ বিষয়টি আমি মসজিদে উপস্থাপন করলে এই অপ্রীতিকর ঘটনাটি ঘটে। মজু তার লোকজন নিয়ে এ হামলার ঘটনাটি ঘটায়।

এ বিষয়ে আইনগত কোন ব্যবস্থা নিবেন কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, আলোচনা করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবেন।


বিভাগ : ধর্ম


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও