রঙ বে-রঙের আলোয় সেজেছে শহর

স্পেশাল করেসপনডেন্ট || নিউজ নারায়ণগঞ্জ ১১:১৩ পিএম, ৯ অক্টোবর ২০২১ শনিবার

রঙ বে-রঙের আলোয় সেজেছে শহর

আর মাত্র তিন দিন পর শারদীয় দুর্গাপূজা শুরু। তবে ইতোমধ্যে রঙ বে-রঙের আলোয় সেজেছে নারায়ণগঞ্জ শহরের বিভিন্ন পাড়া মহল্লা। রাস্তার মোড় থেকে শুরু হওয়া আলোকসজ্জা শেষ হয়ে মন্ডপে গিয়ে। তার আগেই পূজামন্ডপের স্বাগত বার্তা দিয়ে তৈরি করা হয়েছে দৃষ্টনন্দন ফটক। প্রতিটি মন্ডপেই চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি।

৯ অক্টোবর শনিবার রাতে শহরের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে এ দৃশ্য।

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের লোকনাথ পঞ্জিকা অনুসারে আগামী ১১ অক্টোবর ষষ্ঠীতে দেবীর দুর্গার বোধন, আমন্ত্রণ ও অধিবাসের মধ্যে দিয়ে শুরু হবে পাঁচদিনের শারদীয় দুর্গাপূজার আনুষ্ঠানিকতা। ১২ অক্টোবর সপ্তমী, ১৩ অক্টোবর মহাষ্টমী ও কুমারী পূজা, ১৪ অক্টোবর মহানবমী এবং ১৫ অক্টোবর বিজয় দশমীতে প্রতিমা বিসর্জন ও বিজয়া শোভাযাত্রার মধ্যে দিয়ে শেষ হবে এই বর্ণিল উৎসব।

এবারে দেবী দুর্গা ঘোটকে (ঘোড়ায়) মর্ত্যলোকে আসবেন এবং দোলায় (নৌকা) চড়ে আবারো কৈলাশ পর্বেতে স্বামীগৃহে ফিরে যাবেন।

শহরের উকিলপাড়া দুর্গাপূজা মন্ডপ কমিটির উদ্যোগে বঙ্গবন্ধু সড়ক থেকে প্রবেশ পথেই দৃষ্টিনন্দন ফটক করা হয়েছে। একই ভাবে রাস্তার দুই পাশে আলোকসজ্জা করা হয়েছে।

একই ভাবে দৃষ্টিনন্দন আলোকসজ্জা করা হয়েছে শহরের টানবাজার এলাকায়। টানবাজার বঙ্কবিহারী পূজা মন্ডপের উদ্যোগে টানাবাজার পুরো এলাকার রাস্তায় ও ভবনগুলোতেও আলোকসজ্জায় সাজানো হয়েছে। যা এখনই পথচারী ও বাসিন্দাদের নজর কারছে।

এছাড়াও শহরের নিতাইগঞ্জ এলাকায় বলদেব জিউর আখড়া শিব মন্দিরের ফটকও নতুন করে রঙ করা হয়েছে। বিভিন্ন রঙের সঙ্গে আলোকসজ্জায় ফুটিয়ে তোলা হয়েছে।

এদিকে বিভিন্ন মন্ডপে প্রতিমা বসানো হয়ে গেছে। শেষ হয়েছে মন্ডপ সাজসজ্জার কাজও। শেষ মুহূর্তের ফিনিংশ টার্চ দিচ্ছেন কারিগররা। তবে কিছু কিছু মন্ডপে এখনও প্রতিমার সাজানো কাজ চলমান রয়েছে।

শহরের দেওভোগ লক্ষ্মী নারায়ণগঞ্জ জিউর আখড়া দুর্গা মন্দিরে আরো এক সপ্তাহ আগেই প্রস্তুত করা হয়েছে। প্রতিমা বসানো হয়েছে। তবে দৃষ্টিনন্দন ফটকের গেইট করা হয়েছে।

সুমন পাল বলেন,‘১১টি প্রতিমার মধ্যে শুধু বলদেব জিউর আখড়ার প্রতিমা এখন আছে। এটাই সাজসজ্জার কাজ চলছে। আগামীকাল সেই কাজও শেষ হয়ে যাবে। তাছাড়া সব প্রতিমাগুলো মন্ডপে চলে গেছে। এখন মন্ডপে মন্ডপে গিয়ে শেষ মূহূর্তের কাজ চলছে। আর যেসব প্রতিমা অন্যান্য জেলার ছিল সেগুলো পুরোপুরি শেষ করে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

অন্যদিকে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সব থেকে বড় ধর্মীয় উৎসব উপলক্ষে শেষ মূহূর্তে কেনাকাটায় ব্যস্ত। শহরের মার্কেট ও ফুটপাতে কেনাকাটা করতে ঘুরে বেড়াচ্ছেন সনাতন ধর্মাবলম্বী নারী পুরুষরা। বিগত বছর করোনায় তেমন বের হতে না পারলেও এবার মনের ইচ্ছা অনুযায়ী মার্কেটগুলো ঘুরে ঘুরে পছন্দের পোশাক কিনছেন। মার্কেটগুলোতে তেমন ভীড় না থাকলেও ক্রেতাদের উপস্থিতি চোখে পড়ার মতো। তবে এসব থেকে বেশি ভীড় দেখা যাচ্ছে শাড়ি ও বাচ্চাদের পোশাকের দোকানগুলোতেই।

প্রসঙ্গত বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ নারায়ণগঞ্জ জেলার হিসাবে, এবার জেলায় প্রায় ২১৫টি মন্ডপে শারদীয় দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। যা গতবারের তুলনায় ১০টি বেশি।


বিভাগ : ধর্ম


নিউজ নারায়ণগঞ্জ এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।

আরো খবর
এই বিভাগের আরও